100 YEARS OF MUJIB

00
DAYS
00
HOURS
00
MINUTES
00
SECONDS

সাফায়াতের অকাল প্রয়াণে যবিপ্রবি উপাচার্যের শোক

Share:

(যশোর, ১৩ মে, ২০২০ খ্রি.): দুরারোগ্য কিডনি জটিলতায় আক্রান্ত হয়ে শরীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান (পিইএসএস) বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণির মেধাবী শিক্ষার্থী সাফায়েত হোসেন রক্তিমের অকাল প্রয়াণে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন করেছেন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন। 


সাফায়াতের সহপাঠীরা জানিয়েছেন, আজ বুধবার বেলা আড়াইটার দিকে ফরিদপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাফায়াত শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি দুরারোগ্য কিডনি জটিলতায় ভুগছিলেন। ভারত ও বাংলাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু সাফায়াতের দুটি কিডনির কার্যকারিতায় প্রায় নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। সাফায়েত শুধু মেধাবীই ছিলেন না, তিনি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ক্রিকেট দলের নিয়মিত খেলোয়াড়। সাফায়াতের মৃত্যুতে যবিপ্রবির শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। 


এক শোক বাণীতে অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি শিক্ষার্থীকে আমার সন্তান সমতুল্য মনে করি। তাঁর মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয় একজন মেধাবী সন্তানকে হারালো। সাফায়েতের পাশে দাঁড়াতে আমরা সকলে মিলে চেষ্টা করেছি। বিশেষ করে তাঁর সহপাঠীরা যে নিরন্তন চেষ্টা করেছে, তা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে নজির হয়ে থাকবে। আমি সাফায়েতের রূহের মাগফিরাত কামনা করছি এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পিতা-মাতা, পরিবার-পরিজন, দীর্ঘদিনের সহপাঠীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করছি। 


এদিকে সাফায়াত হোসেন রক্তিমের অকাল প্রয়াণে যবিপ্রবির শিক্ষক সমিতি, কর্মকর্তা সমিতি ও কর্মচারী সমিতি গভীর শোক প্রকাশ করেছে। একইসঙ্গে যবিপ্রবি ছাত্রলীগ, সাংবাদিক সমিতিসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনও তাঁর অকাল প্রয়ানে গভীর শোক প্রকাশ করেছে।

বার্তা প্রেরক



মো: আব্দুর রশিদ

জনসংযোগ কর্মকর্তা

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, 

যশোর ৭৪০৮, বাংলাদেশ। 


Useful Links

JUST. Copyright © 2019. All Rights Reserved. Developed by Genesys Softwares