যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগে ক্লাস নিচ্ছেন ভারতের কল্যাণী বিশ^বিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর অলোক কে ব্যানাজি। ছবি: রাজিব মন্ডল, ফটোগ্রাফার, যবিপ্রবি

 

যবিপ্রবির ভিজিটিং প্রফেসর হলেন

কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ে সাবেক ভিসি

 

(যশোর, ০২ নভেম্বর ২০১৮ খ্রি.): যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) ভিজিটিং প্রফেসর হলেন ভারতের কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর অলোক কে ব্যানার্জি। তাঁকে স্ট্রেস অ্যান্ড এক্সারসাইজ ফিজিওলোজি, স্পোর্টস মেডিসিন এবং শারীরিক শিক্ষা বিষয়ে ভারতের পথপ্রদর্শক শিক্ষকদের অন্যতম মনে করা হয়।

 

ভিজিটিং প্রফেসর হিসেবে গত ১ ডিসেম্বর থেকে প্রফেসর অলোক কে ব্যানার্জি যবিপ্রবির শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান (পিইএসএস) বিভাগের মাস্টার্স প্রথম সেমিস্টারের এক্সারসাইজ ফিজিওলোজি কোর্সের ক্লাস নিচ্ছেন। এক মাসব্যাপী এই কোর্স নেবেন ৪০ বছরের শিক্ষকতার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন এই বরণ্যে প্রফেসর।

 

প্রফেসর ব্যানার্জি দুই মেয়াদে কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়া তিনি শিক্ষা অনুষদের ডিন, শারীরিক শিক্ষা বিভাগের চেয়ারম্যানসহ কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন।

 

কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফিজিওলোজি বিভাগ থেকে ১৯৬৮ সালে স্নাতক ও ১৯৭০ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী লাভ করেন। দীর্ঘ ৪০ বছরের শিক্ষকতা জীবনে বিদ্যাসাগর কলেজ, কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়, গোয়ালিয়রের লক্ষ্মীবাঈ ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ফিজিক্যাল এডুকেশন এবং যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ও কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে অতিথি শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়া ফিজিওলোজি, স্পোর্টস মেডিসিনসহ শারীরিক শিক্ষার উৎকর্ষ সাধনে তিনি ৩৮ বছর ধরে গবেষণায় রত ছিলেন।

 

ওয়ার্কশপ, সেমিনার, সিম্পোজিয়ামে অংশ নিতে প্রফের অলোক কে ব্যানার্জি যুক্তরাষ্ট্র, ইংল্যান্ড, জার্মানি ও বাংলাদেশ সফর করেছেন। এ ছাড়া ভারতের নামকরা শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিষয়ক সাময়িকীর সম্পাদক, সম্পাদনা পর্ষদের সদস্যের দায়িত্ব পালন করছেন। দীর্ঘ কর্মজীবনে তিনি ফিজিক্যাল সোসাইটি অব ইন্ডিয়ার এস এর মৈত্র স্মৃতি পুরস্কার, আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি সংহতি তহবিল পুরস্কার লাভ করেন।

 

 

 

বার্তা প্রেরক

মো: আব্দুর রশিদ

জনসংযোগ কর্মকর্তা

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়,

যশোর-৭৪০৮।