গত ১৬ অক্টোবর মঙ্গলবার জাপানের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, ইবারাকি কলেজ ক্যাম্পাসে নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্মারক সই করেন এর প্রেসিডেন্ট ড. এইজি কিতা। এ সময় যবিপ্রবি উপাচার্যের প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন ড. মো: ওমর ফারুক।

 

যবিপ্রবির সঙ্গে জাপানের ইবারাকি

কলেজের এমওইউ স্বাক্ষর

 

(যশোর, ২৭ নভেম্বর ২০১৮): যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) সঙ্গে জাপানের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, ইবারাকি কলেজের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়েছে।

গত ১৬ অক্টোবর মঙ্গলবার জাপানের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, ইবারাকি কলেজ ক্যাম্পাসে নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্মারক সই করেন এর প্রেসিডেন্ট ড. এইজি কিতা। এ সময় যবিপ্রবি উপাচার্যের প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন ড. মো: ওমর ফারুক। এর আগে ৯ অক্টোবর মঙ্গলবার সমঝোতা স্মারকে সই করেন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: আনোয়ার হোসেন।

এ সমঝোতা স্মারকের ফলে দুই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মতবিনিময়, যৌথ গবেষণা, যৌথ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সভা, সিম্পোজিয়াম এবং লেকচারের আয়োজনসহ শিক্ষা ও গবেষণাকে এগিয়ে নেওয়ার পথ সুগম হলো। সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতা করেন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, ইবারাকি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ড. স্বপন কুমার ঘোষ। উল্লেখ্য, তিনি যশোর জেলার সন্তান।

এর আগে ১৪ অক্টোবর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি, ইবারাকি কলেজের আমন্ত্রণে সায়েন্টিফিক ট্যুরে জাপান যান যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি (এনএফটি) বিভাগের পাঁচ জন শিক্ষার্থী। সফরে তাদের সুপারভাইজার হিসেবে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন ড. মো: ওমর ফারুক। এই সফরের সকল আর্থিক সহায়তা দেয় জাপান সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি এজেন্সি (জেএসটি)।

ওই সফরে শিক্ষার্থীরা সেদেশের পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিষয়ে অত্যাধুনিক গবেষণাগার, শিল্প ও কল-কারখানা পরিদর্শন, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা, সেমিনারে অংশ নেওয়াসহ শিক্ষামূলক বিভিন্ন কর্মকাণ্ড অংশগ্রহণ করেন।

 

 

 

 

বার্তা প্রেরক

মো: আব্দুর রশিদ

জনসংযোগ কর্মকর্তা

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়,

যশোর-৭৪০৮।