যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে ইউয়ান জি বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি প্রতিনিধি দল সাক্ষাৎ করতে এলে তাঁদের শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেওয়া হয়। ছবি: রাজিব মন্ডল, ফটোগ্রাফার, যবিপ্রবি

 

যবিপ্রবির সঙ্গে সমঝোতা স্মারক

করতে চায় ইউয়ান জি বিশ্ববিদ্যালয়

 

(যশোর, ৩১ অক্টোবর, ২০১৮): শিক্ষা ও গবেষণায় সহযোগিতা এবং পেশাগত উন্নয়নের জন্য যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) সঙ্গে সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) করতে চায় তাইওয়ানের ইউয়ান জি বিশ্ববিদ্যালয় (ওয়াইজেডইউ)। আজ বুধবার বিকেলে যবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে তাঁর কার্যালয়ে সাক্ষাতকালে ইউয়ান জি বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি প্রতিনিধি দল এ আগ্রহের কথা জানান।
তাইওয়ানের ইউয়ান জি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন বিশ্ববিদ্যালয়টির বৈশ্বিক সম্পর্ক দপ্তরের প্রধান চিং-পু চেন। তিনি যবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: আনোয়ার হোসেনকে তাইওয়ান সফরের আমন্ত্রণ জানান এবং আগামী বছরের জানুয়ারি মাসে যবিপ্রবির সঙ্গে সমঝোতা স্মারক সইয়ের ব্যাপারে তাঁর মতামত জানতে চান। জবাবে যবিপ্রবি উপাচার্য বলেন, শিক্ষা ও গবেষণাকে এগিয়ে নিতে তিনি সব সময় এ ধরনের সমঝোতা স্মারক সইয়ের বিষয়ে আগ্রহী। দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নে তাঁর পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতারও আশ্বাস দেন তিনি। একইসঙ্গে এ ধরনের প্রস্তাবের জন্য ইউয়ান জি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান।
সাক্ষাতকালে প্রতিনিধি দলের সদস্যরা যবিপ্রবি উপাচার্যকে স্মারক শুভেচ্ছা উপাহার দেন। যবিপ্রবি উপাচার্যও তাঁর বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে প্রতিনিধি দলের সদস্যদের শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেন।
উপাচার্যের সঙ্গে সাক্ষাতের পূর্বে প্রতিনিধি দলের সদস্যরা যবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনে কেমিকৌশল বিভাগের আয়োজনে ‘স্টুডেন্ট অ্যাডমিশন অ্যান্ড রিসার্চ কলাবোরেশন’ বিষয়ক একটি সেমিনারে অংশ নেন। সেখানে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. বিপ্লব কুমার বিশ্বাস। স্বাগত বক্তব্য দেন কেমিকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মো: ওয়াসেকুর রহমান।
সেমিনারে তাইওয়ানের ইউয়ান জি বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈশ্বিক সম্পর্ক দপ্তরের প্রধান চিং-পু চেন বলেন, যৌথ সহযোগিতার মাধ্যমে গবেষণা করলে তা অত্যাধিক ফলপ্রসু হয়। তিনি তাঁর বৈশ্বিক শিক্ষার পরিবেশ, গবেষণার সুযোগ এবং যবিপ্রবি এবং ওয়াইজেডইউ-এর মধ্যে দ্বৈত ডিগ্রি দেওয়ার বিষয়েও গুরুত্বারোপ করেন। একইসঙ্গে পিএইচডিতে টিউশন ফি শতভাগ ফ্রি এবং মাস্টার্স প্রোগ্রামে শর্ত সাপেক্ষে বৃত্তির ব্যবস্থা করা হবে বলে উল্লেখ করেন।
প্রতিনিধি দলের আরেক সদস্য শিয়াও হয়ে পুয়া পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপনার মাধ্যমে ইউয়ান জি বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের শিক্ষার সুযোগ, বৃত্তি সুবিধাসহ নানা সুযোগের কথা তুলে ধরেন। সেমিনারে শেষে ইউয়ান জি বিশ্ববিদ্যালয়ে যবিপ্রবির প্রায় ১৫ জন শিক্ষক-শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষা গ্রহণের জন্য আবেদন করেন।

 

 

বার্তা প্রেরক
মো: আব্দুর রশিদ
জনসংযোগ কর্মকর্তা
যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়,
যশোর-৭৪০৮।