গতকাল রোববার রাতে শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ‘সনাতন পরিবার’ এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার আয়োজন করে। ছবি: জনসংযোগ শাখা, যবিপ্রবি

 

যবিপ্রবিতে শুভ জন্মাষ্টমী পালন
অসাম্প্রদায়িক চেতনায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে: যবিপ্রবি উপাচার্য

 

(যশোর, ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮): যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: আনোয়ার হোসেন বলেছেন, সাম্প্রদায়িক শক্তিকে রুখতে অসাম্প্রয়িক চেতনার সকল মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে যদি পরাজিত করতে না পারি, তাহলে আমরা যে উন্নতির সোপানের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি, তা আর সম্ভব হবে না।
গতকাল রোববার রাতে শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ‘সনাতন পরিবার’ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. মো: আনোয়ার হোসেন এসব কথা বলেন। আলোচনা সভার পূর্বে শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক হতে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়ায় শ্রীকৃষ্ণের পূজা অনুষ্ঠিত হয়।
ড. মো: আনোয়ার হোসেন বলেন, এই পৃথিবীতে যদি শান্তিতে থাকতে হয়, তাহলে আমাদের একটি অসাম্প্রয়িক পরিবেশে থাকতে হবে। এই অসাম্প্রদায়িক সমাজ ব্যবস্থা গঠনের জন্যই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৪ বছর জেল খেটেছেন শুধুই তা-ই নয়, তিনি নিজের জীবনটাও এ দেশের জন্য দান করে গেছেন। সুতরাং আমাদের প্রথমে ভাবতে হবে আমি বাঙালি, আমি মুসলমান; আমি বাঙালি, আমি হিন্দু; আমি বাঙালি, আমি বৌদ্ধ; আমি বাঙালি, আমি খ্রিষ্টান। তিনি বলেন, আমরা যখন একটি অসাম্প্রদায়িক চেতনায় আসতে পারবো, তখনই আমরা একে অপরকে শ্রদ্ধা করতে পারবো। পৃথিবীর বৈচিত্র সৃষ্টিকে আমাদের ভালো লাগবে। সব জাতি, বর্ণ, ধর্ম যখন একসঙ্গে কাজ করবে তখনই বাংলাদেশ সামনের দিকে এগিয়ে যাবে।
অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন নওয়াপাড়ার আরোগ্য সদনের স্বত্বাধিকারী ডা. মিলন কুমার বসু। তিনি শ্রীকৃষ্ণের জন্ম তিথি, তাঁর বেড়ে উঠা, ধর্ম, অধর্ম, সমকালীন বাস্তবতা নিয়ে দীর্ঘক্ষণ জ্ঞানগর্ভ বক্তৃতা করেন। উপস্থিত দর্শক শ্রোতা তা মন্ত্রমুগ্ধের মতো উপভোগ করেন।
যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয় ‘সনাতন পরিবার’ এর সভাপতি ড. সুব্রত মন্ডলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক ড. মো: মীর মোশাররফ হোসেন, এ্যাগ্রো প্রডাক্ট প্রসেসিং টেকনোলজির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মৃত্যুঞ্জয় বিশ্বfস, রসায়ন বিভাগের চেয়ারম্যান ড. সুমন চন্দ্র মোহন্ত, প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. দীপক কুমার মন্ডল, যবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সুব্রত বিশ্বfস, শেখ হাসিনা ছাত্রী হলের সাধারণ সম্পাদক হুমায়রা আজমিরা এরিন প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

 

বার্তা প্রেরক

মো: আব্দুর রশিদ
জনসংযোগ কর্মকর্তা
যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়,
যশোর-৭৪০৮।